• [english_date] , [bangla_date] , [hijri_date]

পুতিনকে যুদ্ধ থামাতে বলায় দুই ‘এমপি’কে বহিষ্কার

ভয়েস অফ বাংলাদেশ
প্রকাশিত June 2, 2022
পুতিনকে যুদ্ধ থামাতে বলায় দুই ‘এমপি’কে বহিষ্কার

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ বন্ধের আহ্বান জানানোয় দুই রুশ আইনপ্রণেতাকে কমিউনিস্ট পার্টি থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। নিউজউইকের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

পূর্ব রাশিয়ার প্রিমর্স্কি অঞ্চলের আইনসভার এক বৈঠকে গত শুক্রবার লিওনিড ভাসিউকেভিচ ও গেনাডি শুলগালকে তাদের মন্তব্যের পরে বিশ্বাসঘাতক হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।

ভাসিউকেভিচ পুতিনকে ইউক্রেনে যুদ্ধ বন্ধ করতে এবং দেশটি থেকে সেনা প্রত্যাহার করার আবেদন জানান। ভাসিউকেভিচ বলেন, তিনি কমিউনিস্ট পার্টির তিন সহকর্মীর পক্ষেও কথা বলছিলেন। তারা হলেন, শুলগা, নাতালিয়া কোচুগোভা এবং আলেকসান্দ্র সুস্তভ।

ভাসিউকেভিচ বৈঠকে বলেন, আমরা বুঝতে পারি যে আমাদের দেশ সামরিক অভিযান বন্ধ না করলে আমাদের দেশেও আরও এতিম হবে।

তিনি আরও বলেন, ‘সামরিক অভিযানের সময়, যেসব তরুণ আমাদের দেশের জন্য অনেক উপকার করতে পারে তারা মারা যায় এবং পঙ্গু হয়। আমরা রাশিয়ান ফেডারেশনের সেনাদের শিগগিরই প্রত্যাহারের দাবি জানাই।’

ভাসিউকেভিচের এমন মন্তব্য অঞ্চলটির গভর্নর ওলেগ কোজেমিয়াকোর সঙ্গে একটি উত্তেজনা সৃষ্টি করে। তিনি ভাসুকেভিচকে দেশদ্রোহী হিসেবে আখ্যা দেন।

রুশ ভাষার সংবাদ মাধ্যম মেডিয়াজোনায়র মতে, ভাসিউকেভিচ এবং শুলগাকে বৈঠক থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় এবং অধিবেশনে ভোট দেওয়ার অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়।

প্রিমর্স্কি অ্যাসেম্বলির কমিউনিস্ট পার্টির উপদলের প্রধান আনাতোলি ডলগাচেভ রাষ্ট্রীয় সংবাদপত্র কমারসান্টকে বলেন, দলকে অসম্মান করার জন্য ভাসিউকেভিচ এবং শুলগাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।