• ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২১ ইং , ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৯শে রবিউস-সানি, ১৪৪৩ হিজরী

জামাতে রুকু ধরতে দৌড় দেওয়া যাবে কি?

ভয়েস অফ বাংলাদেশ
প্রকাশিত নভেম্বর ৭, ২০২১
জামাতে রুকু ধরতে দৌড় দেওয়া যাবে কি?

ধর্ম ডেস্কঃ 

অনেকে জামাতে নামাজ পড়তে আগ্রহী। কিন্তু দেখা যায় কোনো কারণে দেরি করে ফেলেন। ফলে জামাতে শরিক হতে দেরি হয়ে যায়। আর দেরি করে যাওয়ার সময় ইমাম হয়ত রুকুতে চলে গেছেন। আর তখনই তিনি জামাতে নামাজে পড়তে ও এই রাকাত ধরতে দৌড় দিয়ে বসেন।

মূলত এভাবে দৌড়ে গিয়ে রুকু ধরা ঠিক হবে কি? এমন করলে নামাজের কোনো ক্ষতি হয় কিনা বা অসুবিধা আছে কিনা; এমনটা অনেকে জানতে চান।

এর উত্তর হলো- জামাতের নামাজে রুকু ধরার জন্য কিংবা তাকবিরে উলা (প্রথম রাকাতে ইমাম সুরা ফাতিহা শুরু করার আগ পর্যন্ত) ধরার জন্য এভাবে দৌড়ে আসা উচিত নয়। কেননা, হাদিসের নির্দেশ হলো, ‘নামাজের ইকামত শুনলে তোমরা ধীরে ও শান্তভাবে (মসজিদে বা জামাতে) যাও এবং তাড়াহুড়া করো না। অতঃপর ইমামের সঙ্গে নামাজের যতটুকু অংশ পাও; ততটুকু পড়ে নাও এবং যেটুকু অংশ ছুটে যায়, তা (একাকী) পূর্ণ করে নাও। (বুখারি, হাদিস : ৬৩৬; মুসলিম, হাদিস : ৬০২)

আরেকটি বিষয় লক্ষণীয় যে, স্বাভাবিক কথা হলো- কেউ যখন দৌড়ে এসে নামাজে শরিক হয়, তখন হয়তো তাকবিরে উলা কিংবা এক/দুই রাকাত বেশি পাবে; কিন্তু তখন সে স্থিরচিত্তে নামাজ পড়তে পারবে না। বরং পুরো নামাজজুড়েই তার মধ্যে অস্থিরতা কাজ করবে। তবে হ্যাঁ, কেউ যদি এতটুকু জোরে হেঁটে আসে- যাতে সে ক্লান্ত ও অস্থিরচিত্ত হয়ে পড়ে না; তাহলে এভাবে এলে কোনো অসুবিধা নেই।