• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ ইং , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৭শে রবিউস-সানি, ১৪৪৩ হিজরী

লিটনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি

ভয়েস অফ বাংলাদেশ
প্রকাশিত জুলাই ১৬, ২০২১
লিটনের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি
স্পোর্টস ডেস্কঃ জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করে ফেললেন লিটন দাস। ২০২০ সালের মার্চে বাংলাদেশ সফরে এসেছিল জিম্বাবুয়ে। ওই সময় ৬ মার্চ সিলেটে অনুষ্ঠিত ওয়ানডেতে লিটন দাস করেছিলেন ১৭৬ রান। যা বাংলাদেশের ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত। সেই ম্যাচের পর আজ টানা দ্বিতীয় সেঞ্চুরি করলেন লিটন। ক্যারিয়ারর চতুর্থ সেঞ্চুরি তুলে নিতে তিনি সময় নিয়েছেন ১১০ বল। হাঁকিয়েছেন ৮টি বাউন্ডারি। তবে সবচেয়ে বড় কথা হলো, প্রচণ্ড চাপের মাঝে লিটন এই ইনিংস উপহার দিয়েছেন।

আজ শুক্রবার হারারে স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় জিম্বাবুয়ে। স্কোরবোর্ডে কোনো রান যোগ হওয়ার আগেই ফিরে যান তামিম ইকবাল। ৭ বল খেলে তিনি মুজরাবানির বলে ‘ডাক’ মারেন। অপর ওপেনার লিটন দাস একপ্রান্ত আগলে রাখার কাজটি করে যাচ্ছিলেন। কিন্তু সঙ্গী হিসেবে কাউকে পাননি। অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসান ২৫ বলে ১৯ রান করে মুজরাবানির শিকার হন। বিতর্ক উস্কে একাদশে সুযোগ পাওয়া মোহাম্মদ মিঠুনও ১৯ রান করে চাতারার শিকার হন।

নিজেকে প্রমাণ করার আরেকটা সুযোগ ছিল মোসাদ্দেক হোসেনের সামনে। এই তরুণ মাত্র ৫ বলে নাগারভার বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দেন। ৭৪ রানে পতন হয় ৪ উইকেটের। লিটন দাসের সঙ্গী হন মাহমুদউল্লাহ। দুজনে মিলে এগিয়ে নিতে থাকেন  দলের স্কোর। শ্রীলঙ্কা সিরিজে বাদ পড়া লিটন দলে ফিরেই দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে ৭৪ বলে ক্যারিয়ারের চতুর্থ ফিফটি তুলে নেন। ৮ ইনিংস পর তার ব্যাটে পঞ্চাশোর্ধ রান এলো। ২০২০ সালের ৬ মার্চ সিলেটে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ তিনি পঞ্চাশোর্ধ ইনিংস (১৭৬) খেলেছিলেন।

পঞ্চম উইকেট জুটিতে ৯৩ রান আসতেই ছন্দপতন। ৫২ বলে এক ছক্কায় ৩৩ রানে লুক জঙ্গুয়ের স্লোয়ার বাউন্সারে পুল করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন মাহমুদউল্লাহ। লিটনের সঙ্গী হন আফিফ হোসেন ধ্রুব। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪১ ্ভারে ৫ উইকেটে ২০৬ রান। লিটন ১০২* এবং আফিফ ১৬* রানে ব্যাট করছেন।

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১