বিনোদন ডেস্কঃ  ভারতে ফাইভজি স্থাপনের বিরোধিতায় এবার সরব হলেন বলিউড অভিনেত্রী জুহি চাওলা। বিনা প্রশ্নে ৫জি প্রযুক্তির বাস্তবায়ন চান না। তার বক্তব্য এই প্রযুক্তির উচ্চ বিকিরণের ফলে ক্ষতি হচ্ছে মানুষের। উদ্ভিদ এবং অন্যান্য প্রাণিও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

জুহি সোমবার এই নিয়ে আবেদন জমা দিয়েছেন দিল্লির উচ্চ আদালতে। ওই আবেদনে তিনি জনসাধারণ, উদ্ভিদ এবং প্রাণীদের উপর ৫জি বিকিরণের প্রভাব সম্পর্কিত বিষয়গুলি উল্লেখ করেছেন।

পিটিশনে দাবি করা হয়, ৫জি পৃথিবীর সকল জীবিত প্রাণীকে রেডিওফ্রিকোয়েন্সি (আরএফ) এক্সপোজারের দিকে ঠেলে দেবে যা বর্তমান বিকিরণ স্তরের চেয়ে শতগুণ বেশি এবং মানুষের উপর ‘গুরুতর, অপরিবর্তনীয় প্রভাব’ ফেলবে।

বিচারপতি সি হরি শঙ্কর ২ জুন শুনানির জন্য মামলাটি অন্য বেঞ্চে পাঠিয়ে দিয়েছেন।

সাবেক এই মিস ইন্ডিয়া বলেন, তিনি প্রযুক্তিগত অগ্রগতি বাস্তবায়নের বিরুদ্ধে নন। তবে বিকিরণ জনগণের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষার জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

অ্যাডভোকেট দীপক খোসলার মাধ্যমে দায়ের করা আবেদনে জুহি চাওলা চিকিৎসাগত এবং পরীক্ষাগারে করা গবেষণা থেকে পাওয়া ডিএনএ, কোষ এবং অঙ্গপ্রত্যঙ্গে ক্ষতির তথ্য-উপাত্ত উল্লেখ করে দেখান। তিনি তথ্য দেন, আধুনিক জীবনে প্রধান রোগ ক্যান্সার, হৃদরোগ এবং ডায়াবেটিসের পেছনে তড়িৎচুম্বকীয় দূষণের প্রভাব ব্যাপক। যা মোবাইল ফোন প্রযুক্তি থেকে উৎপন্ন হয়।

এক বিবৃতিতে জুহি চাওলার মুখপাত্র বলেন, বর্তমান মামলাটির উদ্দেশ্য হলো যাতে আদালত থেকে বিবাদীদের কাছে একটি নিশ্চয়তা চাওয়া যায় যে, ৫জি প্রযুক্তি মানব জাতি, নারী, পুরুষ, প্রাপ্তবয়স্ক, শিশু, প্রাণী, উদ্ভিদসহ সকল প্রাণীর জন্য এটা ক্ষতিকর হবে না।