• ১৩ই মে, ২০২১ ইং , ৩০শে বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১লা শাওয়াল, ১৪৪২ হিজরী

বার্সা হতাশ নন পিএসজির কাছে হেরেও

newsup
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২১
বার্সা হতাশ নন পিএসজির কাছে হেরেও

স্পোর্টস ডেস্কঃ চ্যাম্পিয়নস লিগে পিএসজির কাছে ৪-১ গোলে বিধ্বস্ত হয় বার্সেলোনা। গত সপ্তাহের সেই হারের ক্ষত এখনও শুকায়নি। পরের ম্যাচেই লা লিগায় দুর্বল প্রতিপক্ষ কাদিজের সঙ্গেও ১-১ গোলে ড্র করল বার্সেলোনা। পয়েন্ট হারিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন বার্সা কোচ রোনাল্ড কোম্যান।

সাবেক এই ডাচ তারকা ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, “পিএসজির কাছে হেরে গিয়েও এতটা হতাশ হইনি। আগের ম্যাচে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ হেরে যাওয়ায় ব্যবধান কমানোর সুযোগ ছিল। সেটাও হাতছাড়া হল। যা খুবই হতাশাজনক।”

রবিবার ক্লাব রেকর্ড ৫০৬তম ম্যাচ খেলতে নামেন দলের প্রাণভোমরা লিওনেল মেসি। এদিন তার গোলও জেতাতে পারেনি বার্সাকে। কাদিজের বিপক্ষে পুরো ম্যাচে দাপট দেখিয়েও ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় জয় হাতছাড়া হয় বার্সার।

ম্যাচে একের পর গোলের সুযোগ হাতছাড়া করেছেন উসমান ডেম্বেলে, আঁতোয়ান গ্রিজমান। ম্যাচ চলাকালীন ডাগআউটেই তা নিয়ে হতাশা প্রকাশ করতে দেখা গেছে কোম্যানকে। লিওনেল মেসির পেনাল্টি গোলে জয়ের কাছেই ছিল বার্সেলোনা।

ম্যাচের শেষ দিকে ডিবক্সে ক্লেঁমো লংলেঁ অহেতুক ফাউল করলে পেনাল্টি পায় কাদিজ। নির্ধারিত সময়ের ৩ মিনিট আগে প্রতিপক্ষের একজনকে ডিবক্সে অহেতুক ফাউল করেন ক্লেমোঁ লংলেঁ। সফল স্পটকিক থেকে নবাগত কাদিজকে ১ পয়েন্ট এনে দেন আলেক্স ফার্নান্দেজ। পয়েন্ট তালিকার নীচের থাকা দলটি সুযোগ কাজে লাগাতে ভুল করেনি।

হারের জন্য এককভাবে কাউকে দায়ী করতে নারাজ বার্সা কোচ। কোম্যান বলেন, “আমি এককভাবে কোনও খেলোয়াড়কে দায়ী করতে পছন্দ করি না। আমাদের আক্রমণভাগ পুরোপুরি ব্যর্থ। আমাদের ডিফেন্ডারদের যে মান তাতে সহজেই পেনাল্টি না করে বল ক্লিয়ার করতে পারতো।

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
১০১১১২১৩১৪
১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮