প্রচ্ছদ

‘ওয়াটসনের রান পাওয়া ছিল সময়ের ব্যাপার’

www.adarshabarta.com

চেন্নাই সুপার কিংস বুড়োদের দল, শেন ওয়াটসনের মতো অফ ফর্মের বুড়ো ক্রিকেটারকে এত টাকা দিয়ে দলে রাখা কী দরকার! প্রথম চার ম্যাচে সাবেক এই অজি ক্রিকেটারের পারফরম্যান্সের পর এমন সমালোচনা স্বাভাবিকই ছিল।

তবে এবারের আইপিএলে নিজেদের পঞ্চম ম্যাচে এসে সব সমালোচনার জবাব ব্যাট হাতে দিলেন ওয়াট্টো। পাঞ্জাবের বিপক্ষে ৫৩ বলে ১১ চার এবং ৩ ছয়ে অপরাজিত ৮৩ রানের অসাধারণ এক ইনিংসে মুখ বন্ধ করে দিলেন সবার। চেন্নাইয়ের এই ওপেনারের উপর বিশ্বাস ছিল দলটির কোচ স্টিফেন ফ্লেমিংয়ের। ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনে এই কিউই কোচ জানিয়েছেন, তিনি জানতেন ওয়াটসনের ব্যাটে রান আসা কেবল সময়ের বিষয়। আর ব্যাট হাতে বিধ্বংসী ওয়াটসন সবসময় দলের গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার বলে জানিয়েছেন ফ্লেমিং।

 

এবারের আসরে প্রথম চার ম্যাচে ওয়াটসন করেছিলেন ১, ১৪, ৩৩ ও ৪ রান। ম্যাচে রান না পেলেও ব্যাট হাতে অনুশীলনে ঠিকই ছন্দে ছিলেন এই অজি। যার ফলে ম্যাচে তাকে নামাতে দুইবার ভাবতে হয়নি ফ্লেমিংকে।

চেন্নাইয়ের এই কোচ বলেন, ‘শেন রান না পেলেও নিজের কাজে কোনো পরিবর্তনই আনেননি। নিজের উপর তার সবসময় আত্মবিশ্বাস ছিল। আর চ্যাম্পিয়ন ক্রিকেটারদের এটাই শক্তি। শেনকে বাদ দেওয়ার কথা উঠেছিল। কিন্তু সে অনুশীলন নেটে দারুণ ছন্দে ছিল। আর তাই তাকে দলে নেওয়া নিয়ে আমাকে দুইবার ভাবতে হয়নি।’

ফ্লেমিং আরও যোগ করেন, ‘শেন তার কাজগুলো সঠিকভাবে করছিল। আমি জানতাম, তার রান পাওয়া কেবলই সময়ের ব্যাপার। শেন দলে কোনো ভূমিকা পালন করা, আমাদের দলের জন্য খুব বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

ওয়াটসনের বয়স এখন ৩৯ বছর ১১০ দিন। ফলে তার বয়সের দোহাই তুলে দল থেকে বাদ দেওয়ার কথা তোলা যায়। কিন্তু এখনো ৩১ বলে পঞ্চাশ হাঁকানো, ১০১ মিটারের ছক্কা মারা, দেড়শ রানের জুটি গড়া ‘এক্স ফ্যাক্টর’-কে দলের বাইরে রাখার কথা কী চিন্তা করা যায়!